একের ভেতর অনেক: কিভাবে ছুরি শুটকি রান্না করবেন? জেনে নিন কয়েক পদের রান্না

  • সামুদ্রিক ছুরি শুঁটকী, মাছ গুলো অনেক লম্বা হয়, শক্ত মাছ। তবে এটা ছেঁচে রান্না করা হয়েছে বলে কিছুটা ভিন্নতা আছে। চলুন, দেখে ফেলি। উপকরনঃ – ছুরি শুঁটকীঃ ২৫০/৩০০ গ্রাম (টুকরা ছোট বা আপনার ইচ্ছা মত করে নিতে পারেন, পরে ছেঁচে নেয়া হবে) – পেঁয়াজ কুঁচিঃ মাঝারি তিনটে – রসূনঃ বাটা, চার টেবিল চামচ – হলুদ গুড়া বা বাটাঃ ১ চা চামচের কম – মরিচ গুড়া বা বাটাঃ ১ চা চামচ (বুঝে শুনে, ঝাল পরিমিত হওয়া জরুরী) – কাঁচা মরিচঃ ৫/৬ টা (ঝাল বুঝে, দুই দফায়) – লবনঃ পরিমান মত – তেলঃ সয়াবিন তেল হাফ কাপের চেয়ে কম (শুঁটকীতে একটু তেল বেশি হলে ভাল হয়, আপনার ইচ্ছা, তবে আমি কম তেল পছন্দ করি কিন্তু দিতে বেশী পড়ে যায়!) – পানিঃ পরিমান মত প্রনালীঃ প্রথমে ছুরি শুটকি টুকরো টুকরো করে কেটে কুসুম গরম পানিতে ভিজে ধোয়া উত্তম। সামান্য সময়ে ভিজিয়ে নরম করা যেতে পারে। এরপর পানি থেকে ধুয়ে তুলে নিন। এখন শিলপাটা দিয়ে ছেঁচে নিন এবং কাঁটা ফেলে দিন। কাঁটা যত কম রাখা যায় ততই ভালো । একটি কড়াইতে তেল গরম করে তাতে পেঁয়াজ কুঁচি ভেঁজে নিন। সামান্য লবন ও মরিচ চিরে দিন। রসুন বাটা, মরিচ ও হলুদ গুড়া মিশিয়ে নেয়া হয়েছে। ফাইন্যাল লবন স্বাদ দেখুন। এরপর সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে চুলা থেকে নামিয়ে ফেলুন।
  • ছুরি শুঁটকি ছোট করে কাটা আধা কাপ, পেঁয়াজ কুচি ২ কাপ, শুকনা মরিচের গুঁড়া ২ টেবিল চামচ, লবণ পরিমাণমতো, চিনি আধা চা চামচ, লেবুর রস ১ চা চামচ, তেল আধা কাপ, আদা বাটা আধা চা চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, ধনে গুঁড়া ১ চা চামচ, হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ, তেজপাতা ১টি, কাঁচামরিচ চার টুকরা করে কাটা ৬টি। প্রণালী : শুঁটকি ভালো করে ধুয়ে সিদ্ধ করে বেটে নিতে হবে। তেল গরম করে আদা-রসুন দিয়ে ভালো করে ভুনে শুঁটকি দিয়ে ভুনতে হবে। হলুদ, ধনে, মরিচের গুঁড়া, তেজপাতা, লবণ দিয়ে মাঝারি আঁচে ৮-১০ মিনিট ভুনে পেঁয়াজ দিয়ে ভুনতে হবে। পেঁয়াজ নরম হয়ে এলে চিনি, লেবুর রস, কাঁচামরিচ দিয়ে কিছুণ নাড়াচাড়া করে নামাতে হবে।

  • ছুরি শুটকিঃ মাঝারি সাইজের ২টি; হাসের বা মুরগির ডিম সেদ্ধ ৪টি; বড় আলুঃ চৌকো করে কাটা; পেঁয়াজ কুচিঃ ১/৪ কাপ; রসুন কুচিঃ ১ চা চামচ; আদা বাটাঃ ১/২ চা চামচ; হলুদ গুঁড়াঃ সামান্য; ধনিয়া গুঁড়াঃ ১/২ চা চামচ; মরিচ গুঁড়াঃ পরিমাণ মত; ধনিয়া পাতা কুচি ; লবন, তেল ,পানি প্রনালিঃ কড়াইতে তেল গরম হলে পেঁয়াজ কুচি ছেড়ে দিন। হাল্কা বাদামি হলে তাতে একে একে রসুন কুচি,আদা বাটা ও বাকি মসলা দিয়ে কষিয়ে নিন। আলু আর ডিমগুলো হলুদ লবন মাখিয়ে হাল্কা ভেজে রাখুন। শুটকি মাছের টুকরা গুলো হাল্কা গরম পানিতে কিছুক্ষন ভিজিয়ে রাখার পর তুলে নিয়ে কষিয়ে রাখা মসলায় দিয়ে দিন। আবার কিছুক্ষন কষিয়ে ভাজা আলু,লবন আর সেদ্ধ ডিমগুলো তাতে দিন।এবার পরিমাণ মত পানি দিয়ে আলু সেদ্ধ হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। পানি কমে ঘন হয়ে এলে ধনিয়া পাতা কুচি ছড়িয়ে দিয়ে নামিয়ে রাখুন।

  • ছুরি শুটকির ভর্তা উপকরণ: ২ কাপ থান কুনি পাতা, ৩ টা মাঝারি ছুরি শুটকি মাছ, ২ টুকরা রসুন কুচি, ১ টা পেঁয়াজ কুচি, ২ টেবিল চামচ শুকনা মরিচ গুঁড়া , দেড় টেবিল চামচ সরিষা তেল ,লবণ পরিমাণ মতো (ছুরি শুটকিতে লবন থাকে তাই খুব কম লবন লাগবে) প্রণালিঃ প্রথমে শুকনা চ্যাপটা তাওয়াতে অল্প তাপে ছুরি শুটকির টুকরাগুলোকে দুই পাশ মুচমুচে করে (মুচমুচ না হলে গুঁড়া হবে না) লাল লাল না হওয়া পর্যন্ত ছেঁকতে হবে । এখন একটা চাকু ছুরি দিয়ে ঘষে ঘষে ছেঁকা মাছের গায়ের উপরের পোঁড়া অংশ তুলে নিতে হবে। তারপর হামান দিশতাতে মাছকে গুঁড়া করতে হবে। কড়াইতে তেল দিয়ে পেঁয়াজ ও রসুন কুচি ভাজতে হবে।।এতে অল্প তাপে শুকনা মরিচ গুঁড়া,মাছের গুঁড়া ও লবণ দিয়ে ভালভাবে নাড়তে থাকুন ২ মিনিট যাতে সব সাথে মিশে যায়।অবশেষে থান কুনিপাতা ছড়িয়ে ১ মিনিট নেড়ে ছেড়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

  • উপকরণ: ২ কাপ থান কুনি পাতা, ৩ টা মাঝারি ছুরি শুটকি মাছ, ২ টুকরা রসুন কুচি, ১ টা পেঁয়াজ কুচি, ২ টেবিল চামচ শুকনা মরিচ গুঁড়া , দেড় টেবিল চামচ সরিষা তেল ,লবণ পরিমাণ মতো (ছুরি শুটকিতে লবন থাকে তাই খুব কম লবন লাগবে) প্রণালিঃ প্রথমে শুকনা চ্যাপটা তাওয়াতে অল্প তাপে ছুরি শুটকির টুকরাগুলোকে দুই পাশ মুচমুচে করে (মুচমুচ না হলে গুঁড়া হবে না) লাল লাল না হওয়া পর্যন্ত ছেঁকতে হবে । এখন একটা চাকু ছুরি দিয়ে ঘষে ঘষে ছেঁকা মাছের গায়ের উপরের পোঁড়া অংশ তুলে নিতে হবে। তারপর হামান দিশতাতে মাছকে গুঁড়া করতে হবে। কড়াইতে তেল দিয়ে পেঁয়াজ ও রসুন কুচি ভাজতে হবে।।এতে অল্প তাপে শুকনা মরিচ গুঁড়া,মাছের গুঁড়া ও লবণ দিয়ে ভালভাবে নাড়তে থাকুন ২ মিনিট যাতে সব সাথে মিশে যায়।অবশেষে থান কুনিপাতা ছড়িয়ে ১ মিনিট নেড়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

মন্তব্য করুন

(বিঃ দ্রঃ আপনার ইমেইল গোপন রাখা হবে) Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.