fbpx
শুটকি রেসিপি

রেসিপির নাম- ছুরি শুঁটকি দিয়ে বগলী

ছুরি শুঁটকি
ছুরি শুঁটকি
373views

কলা গাছের কান্ড এর ভিতরের লম্বা সাদা (টিউব লাইটের মত দেখতে) অংশটির নাম বগলী।বিভিন্ন জেলার মানুষ একে বিভিন্ন নামে চিনে। বগলী,আটিয়া,আটি,থোর,আনাজ,কাইন্জাইল,কাইজাল, আনাজ,ভাদাল এরকম বেশ কিছু নাম আমি পেয়েছি সবার কাছ থেকে।ধন্যবাদ সবাইকে।
উপকরন:
* বগলী কুঁচি———- ৪-৫ কাপ
* ছুরি শুঁটকির ছোট পিস —১২-১৫ টি
* পেঁয়াজ কুঁচি———–১/৩ কাপ
* রসুন বাটা ———–১ চা চামচ
* হলুদ গুঁড়া——— ১ চা চামচ
* জিরা গুঁড়া ——— ১ চা চামচ
* মরিচ গুঁড়া———১ ১/২ চা চামচ
* লবণ————-স্বাদ মত
*তেল ——পরিমান মত

প্রস্তুত প্রণালী:
ছুরি শুঁটকির ছোট পিস গুলো কুসুম গরম পানিতে কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রাখুন।পরে ভালোকরে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন।
বগলীর বাহিরের দিকের অংশ ছিলে ফেলে দিয়ে পাতলা পাতলা গোল স্লাইস করে করে নিতে হবে। প্রতিবার গোল স্লাইস করার সময় যে আঁশ বের হবে তা যে কোন হাতের একটি আন্গুলে প্যাঁচিয়ে নিতে হবে।
এবার গোল স্লাইস গুলো চিকন চিকন করে অনেকটা ভাজির মত করে কেটে নিন।ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন।কেটে রেখে দিলে। এগুলোর কালার কিছুটা ডার্ক কালার হয়ে যায়। তাই কেটে নেবার পর পরই রান্না করে নেয়া উচিত।

একটি পাত্র চুলায় দিয়ে তাতে তেল দিন।পেঁয়াজ কুচি দিন । অল্প ভুনে নিয়ে রসুন বাটা দিন। রসুন বাটা ভুনে নিয়ে এতে হলুদ,মরিচ ও জিরা গুঁড়া দিয়ে নাড়ু্ন । তেল উপরে উঠে আসলে ছুরি শুঁটকির ছোট পিসগুলো এখানে দিয়ে মসলায় কষিয়ে নিন। ১ কাপ পরিমানে পানি দিয়ে চুলার আঁচ কমিয়ে দিন। ছুরি শুঁটকি গুলো কিছুটা সিদ্ধ হয়ে গেলে বগলী গুলো দিয়ে দিন। নেড়ে নিয়ে খুবই সামান্য পানি দিয়ে ঢাকনা দিয়ে
দিন । যখন বগলী নরম হয়ে যাবে তখন নামিয়ে নিন।

ডাল ও চিংড়ি মাছ দিয়ে রান্না করলেও মজা হয়।

ফেনীতে একে বলে – কলার বগলী
চট্টগ্রাতে একে বলে – বলি
বগুড়াতে একে বলে – আটি , ভান্জরা
টাঙ্গাইলে একে বলে – কাইজাল বা কাইন্জাল
সিরাজগন্জে একে বলে -কাদাইল বা কান্দাইল
বরিশালে ,নওগাঁ ও খুলনাতে একে বলে -থোর
সিলেটে একে বলে- থোর, আনাজ
পাবনায় একে বলে – ভাদাল

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.