লইট্টা মাছের কাপ কেক
লইট্টা মাছের কাপ কেক

লইট্টা শুটকির রকমারি রান্নার রেসিপি, একসাথে পাঁচ পদের লইট্টা শুটকির রান্নার রেসিপি

লইট্টা শুটকির রকমারি রান্নার রেসিপি, একসাথে পাঁচ পদের লইট্টা শুটকির রান্নার রেসিপি

লইট্টা মাছের কাপ কেক
উপকরণ: সেদ্ধ করে কাঁটা বেছে নেওয়া লইট্টা মাছ ১ কাপ, সেদ্ধ চটকানো আলু আধা কাপ, ঝুরি করা গাজর ১ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ বাটা আধা টেবিল চামচ, মাখন ১ টেবিল চামচ, ব্রেডক্রাম্ব আধা কাপ, ডিম ১টি, পনির ঝুরি এক কাপ, গোল মরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ, লেবুর রস আধা টেবিল চামচ, লবণ আধা চা-চামচ, ফিশ সস ১ চা-চামচ, সাদা সস পরিমাণমতো অথবা স্বাদ অনুযায়ী।
প্রণালি: বাটিতে মাছ ও আলুর সঙ্গে ঝুরি করা গাজর, গোলমরিচের গুঁড়া, ফিশ সস, লেবুর রস, পেঁয়াজ বাটা, মাখন, লবণ ও আধা কাপ ঝুরি করা পনির দিয়ে মেখে নিন। এবার ডিম দিয়ে মাখান। কাপকেক ডাইসে মাখন মেখে চারপাশে ময়দা ছিটিয়ে নিন। কেক ডাইসের এক-তৃতীয়াংশে মাছের মিশ্রণ দিয়ে চেপে তার ওপর সাদা সসের প্রলেপ এবং ঝুরি করা পনির ছিটিয়ে দিন। একইভাবে আরেক স্তর মাছ, সাদা সস ও পনির দিন। এভাবে সবগুলো ডাইস সাজান। এবার প্রি-হিটেড ওভেন ২০০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপে ৪০ মিনিট বেক করুন। নামিয়ে ঠান্ডা হলে প্লেটে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

সাদা সস তৈরি
উপকরণ: মাখন ১০০ গ্রাম, ঘন দুধ দেড় থেকে ২ কাপ, ময়দা ৩ মুঠ, লবণ সিকি চা-চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া সিকি চা-চামচ।
প্রণালি: কড়াইয়ে মাখন দিয়ে ময়দা, লবণ ও গোলমরিচ দিয়ে বাদামি করে ভেজে নিন। এবার ১ কাপ ঘন দুধ দিয়ে ময়দার সঙ্গে মসৃণ করে মেশাতে থাকুন চুলা বন্ধ করে। এবার সসের ঘনত্ব বুঝে অল্প অল্প করে দুধ মিশিয়ে নিয়ে সাদা সস তৈরি করুন।

মুচমুচে লইট্টা ভাজি

মুচমুচে লইট্টা ভাজি

মুচমুচে লইট্টা ভাজি
উপকরণ: লইট্টা মাছ (বেছে ধুয়ে পানি নিংড়ে নেওয়া) ২৭৫ গ্রাম, আদা বাটা ১ চা-চামচ, রসুন বাটা ১ চা-চামচ, পেঁয়াজ বাটা ১ চা-চামচ, হলুদ গুঁড়া আধা চা-চামচ, লাল মরিচ গুঁড়া ৩ চা-চামচ, ভাজা ধনে গুঁড়া আধা চা-চামচ, ভাজা জিরা গুঁড়া আধা চা-চামচ, লবণ আধা চা-চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ, ময়দা আধা কাপ, তেল ভাজার জন্য।
প্রণালি: মাছ ধুয়ে পানি নিংড়ে নিয়ে তেল, ময়দা, ১ চা-চামচ লাল মরিচের গুঁড়া এবং আধা চা-চামচ লবণ বাদে বাকি অন্য সব উপকরণ দিয়ে মেখে ফ্রিজে ঘণ্টা দুয়েক রেখে দিন। একটি কাগজের প্যাকেটে বা প্লাস্টিকের প্যাকেটে ময়দা এবং বাকি লবণ ও মরিচের গুঁড়া মিশিয়ে রাখুন। মাছ ভাজার আগে ফ্রিজ থেকে বের করে ময়দার প্যাকেটে ভরে ভালো করে ঝাঁকিয়ে নিন। কড়াইয়ে তেল গরম করে প্যাকেট থেকে মাছগুলো বের করে ব্যাটারে গড়িয়ে লাল লাল মুচমুচে করে ভেজে উঠিয়ে নিন। সসের সঙ্গে গরম গরম পরিবেশন করুন।
ব্যাটারের জন্য—উপকরণ: ময়দা এক কাপের চার ভাগের তিন ভাগ, চালের গুঁড়া এক কাপের চার ভাগের তিন ভাগ, খাওয়ার সোডা সিকি চা-চামচ, লবণ আধা চা-চামচ, কাঁচা মরিচ কুচি ৫টি, রসুন বাটা ১ চা-চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া সিকি চা-চামচ, লেবুর রস আধা টেবিল চামচ, সিজনিং সস ১ টেবিল চামচ, গরম তেল আড়াই টেবিল চামচ, পানি ১ থেকে দেড় কাপ।
প্রণালি: বাটিতে ময়দা, খাওয়ার সোডা, গোলমরিচ গুঁড়া, চালের গুঁড়া, লবণ একত্রে মিশিয়ে নিন। এবার বাকি অন্য উপকরণগুলো দিয়ে প্রথমে ১ কাপ পানি দিয়ে মেখে পরে বাকি আধা কাপ পানি দিয়ে মিশিয়ে ফেটে মসৃণ ব্যাটার তৈরি করুন। তারপর গরম তেল মিশিয়ে আরও কিছুক্ষণ ফেটে নিয়ে এতে মাছ গড়িয়ে ভেজে নিন।

লইট্টা মাছের ভুনা

লইট্টা মাছের ভুনা

লইট্টা মাছের ভুনা
উপকরণ: লইট্টা মাছ ২৫০ গ্রাম, পেঁয়াজ কুচি সিকি কাপ, তেল সিকি কাপ, টমেটো বাটা আধা কাপ, হলুদ গুঁড়া সিকি চা-চামচ, লাল মরিচের গুঁড়া আধা চা-চামচ, কাঁচা মরিচ ফালি ২টি, ধনে গুঁড়া সিকি চা-চামচ, লবণ আধা চা-চামচ, চিনি ১ চা-চামচ, লেবুর রস দেড় চা-চামচ, ভাজা জিরা গুঁড়া আধা চা-চামচ, আদা বাটা দেড় চা-চামচ, রসুন বাটা দেড় চা-চামচ, পেঁয়াজ বাটা ১ টেবিল চামচ।
প্রণালি: মাছ পরিষ্কার করে বেছে ধুয়ে পানি নিংড়ে নিন। ফ্রাইপ্যানে তেল গরম করে পেঁয়াজ কুচি বাদামি করে ভেজে টমেটো বাটা, লাল মরিচের গুঁড়া এবং চিনি দিয়ে কষিয়ে নিন। তারপর পেঁয়াজ বাটা, আদা ও রসুন বাটা দিয়ে নেড়ে সামান্য পানি দিন। এবার হলুদ, ধনে গুঁড়া ও লবণ দিয়ে সামান্য পানি দিয়ে কষান।
এবার মাছ দিয়ে অল্প নেড়ে জিরা গুঁড়া, লেবুর রস ও কাঁচা মরিচ ফালি দিয়ে আঁচ কমিয়ে ঢেকে দিন। ২-৩ মিনিট পর ঢাকনা খুলে ফ্রাইপ্যান ঝাঁকিয়ে মাছ ও মসলা মিশিয়ে নিন। এই মাছ থেকে প্রচুর পানি বের হয় এবং খুবই নরম। তাই না নেড়ে ফ্রাইপ্যান ঝাঁকিয়ে বা হাতল ধরে ঘুরিয়ে নিলে ভালো। এবার ঢেকে দিন। পানি টেনে ভুনা হয়ে এলে নামিয়ে ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

লইট্টা শুঁটকি ভুনা

লইট্টা শুঁটকি ভুনা

লইট্টা শুঁটকি ভুনা
উপকরণ: লইট্টা শুঁটকি ২০০ গ্রাম, পেঁয়াজ কুচি ৪ কাপ, রসুন মোটা কুচি দেড় কাপ, টমেটো বাটা ১ কাপ, হলুদ গুঁড়া ১ চা-চামচ, লাল মরিচ গুঁড়া ২ চা-চামচ, আদা বাটা ১ চা-চামচ, রসুন বাটা ১ চা-চামচ, লবণ স্বাদ অনুযায়ী, চিনি দেড় চা-চামচ, কাঁচা মরিচ ফালি ৮টি, তেল ১ কাপ।
প্রণালি: শুঁটকি প্রতিটি ৩-৪ টুকরা করে কেটে শুকনো তাওয়ায় ভালো করে টেলে নিয়ে ঘণ্টা খানেক কুসুম গরম পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর গরম পানি দিয়ে ভালো করে কয়েকবার ধুয়ে নিন। পানি ঝরিয়ে পাটায় সামান্য থেঁতো করে মাঝখানের মোটা কাঁটা ফেলে দিন।
তেল গরম করে ২ কাপ পেঁয়াজ কুচি ও সিকি চা-চামচ লবণ দিয়ে ভাজুন। পেঁয়াজ মজে এলে বাকি পেঁয়াজ দিয়ে বেশ কিছুক্ষণ ভেজে চিনি, টমেটো বাটা এবং লাল মরিচের গুঁড়া দিয়ে ভালো করে কষিয়ে নিন। সামান্য পানি এবং লবণ দিয়ে নাড়ুন। এবার কাঁচা মরিচ ও রসুন বাদে অন্যান্য মসলা দিয়ে অল্প পানি দিয়ে কষিয়ে শুঁটকিগুলো দিন। এবার রসুন কুচি ও কাঁচা মরিচ ফালি দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিন। পাঁচ-সাত মিনিট পর নেড়ে আঁচ কমিয়ে দিন। ভুনা ভুনা হয়ে এলে আরও একবার নেড়ে ঢেকে দিয়ে পাঁচ মিনিট পর চুলা বন্ধ করে দিন। পাত্রে বেড়ে ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

লইট্টা মাছের ঝুরা

লইট্টা মাছের ঝুরা

লইট্টা মাছের ঝুরা
উপকরণ: সেদ্ধ করে বেছে নেওয়া লইট্টা মাছ আধা কাপ, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, রসুন কুচি ১ চা-চামচ, টমেটো কুচি আধা কাপ, কাঁচা মরিচ কুচি ২টি, হলুদ গুঁড়া সিকি চা-চামচ, লাল মরিচ গুঁড়া সিকি চা-চামচ, লবণ আধা চা-চামচ অথবা স্বাদ অনুযায়ী, চিনি ১ চা-চামচ, আদা কুচি আধা টেবিল চামচ, সয়াবিন তেল সিকি কাপ, লেবুর রস ১ চা-চামচ, লেবুর খোসার কুচি ১ চা-চামচ।
প্রণালি: তেলে পেঁয়াজ কুচি, আদা ঝুরি ও রসুন কুচি দিয়ে বাদামি করে ভেজে নিন। তারপর টমেটো কুচি দিয়ে আরও কিছুক্ষণ ভেজে নিয়ে মরিচ গুঁড়া ও চিনি দিয়ে কষিয়ে নিন। সামান্য পানি দিয়ে নেড়ে হলুদ গুঁড়া এবং লবণ দিয়ে ভালো করে কষান। এবার লইট্টা মাছ দিয়ে চুলার আঁচ বাড়িয়ে নাড়তে থাকুন। ভাজা ভাজা হয়ে এলে লেবুর রস দিয়ে নাড়ুন। কাঁচা মরিচ কুচি ও লেবুর খোসা কুচি দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিয়ে চুলা বন্ধ করে দিন। দুই মিনিট পর নামিয়ে বেড়ে পরিবেশন করুন।

মন্তব্য করুন

(বিঃ দ্রঃ আপনার ইমেইল গোপন রাখা হবে) Required fields are marked *

*